জন্মদিন নিয়ে খুব বেশি আগ্রহ কখনো ছিল না প্রবীণ অভিনেত্রী দিলারা জামানের। কিন্তু এবার ছিল ব্যতিক্রম। কারণ ২৬ বছর পর দুই সন্তানের সঙ্গে জন্মদিন উদযাপন করেছেন তিনি। দুই মেয়েকে কাছে পেয়ে আবেগে ভেসেছেন ৮০ বছর পূর্ণ করা এই অভিনেত্রী। আজ তিনি ৮১ বছর বয়সে পা দিয়েছেন।

দিলারা জামানের দুই মেয়ে দেশের বাইরে থাকেন। তাঁরা পড়াশোনা করতে দুই যুগের বেশি সময় আগে দেশ ছাড়েন। পড়াশোনা শেষ হলেও যুক্তরাষ্ট্রেই থিতু হয়েছেন। চেয়েছিলেন সেখানেই মাকে নিয়ে যেতে। কিন্তু অভিনয় আর দর্শকদের ভালোবাসার কারণে একেবারে দেশের বাইরে যাননি দিলারা জামান। এই দীর্ঘ সময়ের ভেতর একাধিক জন্মদিন গেলেও কখনোই তিন মা–মেয়েকে একসঙ্গে দেখা যায়নি। এবার ছিল ব্যতিক্রম।

দিলারা জামান বলেন, ‘এমন হতো যে কোনো মেয়ে হয়তো জন্মদিনের সময় আমার কাছে আছে। আরেকজন আসতে পারেনি। হয়তো একজন চলে যাওয়ার পরে অন্যজন দেশে এসেছে। কিন্তু দুই মেয়ে তানিরা আর জুবায়রাকে একসঙ্গে নিয়ে দীর্ঘদিন জন্মদিন উদযাপন করা হয়নি। এবার মনে হয়, ২৬ বছর পর দুই মেয়েকে আমার জন্মদিনে একসঙ্গে পেলাম। কী যে ভালো লাগল! তারা তাদের বন্ধুবান্ধবদের আমন্ত্রণ জানিয়েছিল। আমার কাছের অনেকেই এসেছিল। এবার অনেক ভালো সময় কাটিয়েছি।’

এখন কাজের ব্যস্ততা থাকলেও দুই মেয়েকে নিয়ে ভালো সময় কাটছে দিলারা জামানের। দুই মেয়েকে নিয়ে অনেক দিন পর একসঙ্গে ঈদও উদযাপন করবেন তিনি। অভিনয়জীবনে সেরা প্রাপ্তি কী, জানতে চাইলে দিলারা জামান বলেন, ‘দর্শক ও সহকর্মীদের ভালোবাসা। তাঁরা আমাকে ভালোবাসেন বলেই হয়তো বিদেশে স্থায়ী হইনি। দুই মেয়েকে রেখে দেশে একা থাকি। এটা অনেক কষ্টের। কিন্তু অভিনয়টাই আমি করে যেতে চাই। এটাই আমার চাওয়া। আর অভিনয় নিয়ে আমার মধ্যে কোনো অপ্রাপ্তি নেই। এখন হয়তো দর্শকের রুচির কারণে মানের পরিবর্তন হচ্ছে। সিরিয়াস কাজ কম হচ্ছে। আমরাও কম কাজ করছি। কিন্তু অভিনয় করে যেতে পারছি, এটাই বড় প্রাপ্তি।’